আমাদের টাইপ করা বইগুলোতে বানান ভুল রয়ে গিয়েছে প্রচুর। আমরা ভুলগুলো ঠিক করার চেষ্টা করছি ক্রমাগত। ভুল শুধরানো এবং টাইপ সেটিং জড়িত কাজে সহায়তা করতে যোগাযোগ করুন আমাদের সাথে।
আধুনিক যুগে ইসলামী বিপ্লব প্রিন্ট কর ইমেল
লিখেছেন মুহাম্মদ কামারুজ্জামান   
Monday, 25 November 2013
আর্টিকেল সূচি
আধুনিক যুগে ইসলামী বিপ্লব
১. আধুনিক বিশ্বে ইসলামী পুনর্জাগরণ
২. বর্তমান প্রেক্ষাপট
৩.দেশে দেশে জন আকাঙ্ক্ষাঃ ইসলামী বিপ্লব
৪. ইসলামী বিপ্লব কি?
৫. ইসলামী বিপ্লবের প্রকৃতি ও বৈশিষ্ট্য
৬. বিপ্লব এনেছে জনতা
৭. জনতাই ইতিহাসের গতি নিয়ন্ত্রণ করে
৮. ইসলামী বিপ্লবের দুটো প্রধান বৈশিষ্ট্য
৯. ইসলামী বিপ্লবের ভিত্তি
১০. বিপ্লব রপ্তানি করা যায় না
১১. ইসলামী বিপ্লব সার্বজনীন
১২. ইসলামী বিপ্লব প্রসংগে মাওলানা মওদূদী
১৩. ইসলামী বিপ্লবের মডেল
১৪. ইসলামী আন্দোলনের চিত্র
১৫. ইসলামের মূল দাওয়াত
১৬. সংগঠন
১৭. ক্যাডার সিসটেম
১৮. নেতৃত্ব
১৯. গণতন্ত্রের শ্লোগান ও ইসলামী বিপ্লব
২০. রাজনৈতিক স্ট্যাটেজি
২১. ইসলামী আন্দোলনের প্রতিবন্ধকতা
২২. সমস্যার মোকাবিলায় করণীয়
২৩. গণআন্দোলন গড়ে তোলার প্রস্তুতি
২৪. গণচেতনার স্তর
২৫. জনতার দাবী
২৬. ইসলামী বিপ্লবের শর্ত
২৭. বিপ্লবের প্রক্রিয়া

২৪. গণচেতনার স্তর
ইসলামী বিপ্লবের সাফল্যের জন্য সংশ্লিষ্ট জনপদে জনগণের মধ্যে জাগ্রত চেতনা সৃষ্টি করা অপরিহার্য। জনগণের চেতনা বা গণচেতনা স্তর যদি পরিস্থিতি অনুধাবনে ব্যর্থ হয় তাহলে জনগণের সক্রিয় সহযোগিতা আশা করা যায় না। আন্দোলনের আহ্বান সম্পর্কে প্রশ্ন ও বিভ্রান্তি দূর করে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত না হওয়ার পরিণতি সম্পর্কে সজাগ না হলে জনতা আন্দোলনের ব্যাপারে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণে এগিয়ে আসতে পারে না। ইসলাম বিরোধী শক্তি ইসলামী জাগরণের বিরুদ্ধে যেভাবে সম্মিলিত শক্তি ব্যবহার করছে তাতে সাধারণ মানুষের মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া থাকাটা অস্বাভাবিক নয়। অনুভূতির দিক থেকে দেশটি যদি মৃতপুরীতে পরিণত হয় এবং জাতীয় আদর্শ, কৃষ্টি এবং সংস্কৃতির উপর অব্যাহত হামলা সম্পর্কে জনসচেতনতা না থাকে তখন সেই জনমণ্ডলীকে সাথে নিয়ে কোন পরিবর্তন আশা করা যায় না।
ঔপনিবেশিক ও পুঁজিবাদী শাসনে শোষণে মুসলিম সমাজে যে উদাসীনতা ও হতাশা পুঞ্জিভূত হয়ে আছে তার ফলে সর্বোত্তম জাতি হিসেবে ন্যায় প্রতিষ্ঠা ও অন্যায় প্রতিরোধের বিপ্লবী ধারা থেকেই তারা আজ বিচ্যুত হয়ে পড়েছে। জাতীয় আদর্শ ইসলামের প্রতনিধিত্বের যে সুমহান দায়িত্ব মুসলিম সমাজের উপর অর্পিত হয়েছে সে সম্পর্কে তাদের অসচেতনতাই যে জাতীয় চেতনায় উজ্জীবনের বড় অন্তরায় তাতে সন্দেহের অবকাশ নেই। ঈমানী চেতনায় উদ্দীপ্ত একটি জনগোষ্ঠী অনৈসলামী ব্যবস্থার মধ্যে নিষ্ক্রীয় বা নিশ্চুপ থাকতে পারে না। ইসলামী ব্যবস্থার অনুপস্থিতি তারা কোনক্রমেই মেনে নিতে পারে না।
মুসলিম হিসাবে দুনিয়ায় যুদ্ধে সর্বোত্তম জাতির দায়িত্ব পালন ও বিশ্ব নেতৃত্ব দেয়ার মত উন্নততর মনোবৃত্তি না থাকলে বর্তমান হতাশাব্যঞ্জক পরিস্থিতির অবসান ঘটানো সম্ভব নয়। আল্লাহর পক্ষ থেকে এ যে এক বিরাট দায়িত্ব এবং এ কাজটি যে কারো ব্যক্তিগত কাজ নয় বরং আল্লাহর কাজ এ অনুভূতি তীব্রতাই গণচেতনাকে শাণিত করবে।



সর্বশেষ আপডেট ( Saturday, 30 November 2013 )